অবশেষে সেই শিক্ষার্থীরা খুলে দিল স্কুলের তালা

গুরুদাসপুরের নাজিরপুর ইউনিয়নের পুরুলিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের তালা খুলে দিয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে।টাকা না দেয়ায় ব্যবহারিক পরীক্ষার নম্বর বোর্ডে না পাঠানোয় ফেল করেছিল বলে অভিযোগ তুলে তারা স্কুলে তালা দেয়।
সূত্র জানায়, মঙ্গলবার বেলা ১১টায় ওই এসএসসি (ভোকেশনাল) পরীক্ষার্থীরা তাদের ফলাফল পেয়ে ওই বিদ্যালয়ের তালা খুলে দিয়েছে। গত ৬ মে এসএসসি রেজাল্ট প্রকাশ হলে ওই বিদ্যালয়ের ১৭ পরীক্ষার্থী অকৃতকার্যের ফল আসে।

পরে তারা বোর্ডে যোগাযোগ করে জানতে পারে ব্যবহারিক পরীক্ষার নম্বর বোর্ডে জমা দেননি প্রধান শিক্ষক জারজিস হোসেন। এতে তারা সবাই অকৃতকার্য হয়। শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন দফতরে আবেদন দিয়ে ব্যর্থ হয়ে গত শনিবার তারা বিদ্যালয়ে তালা দিয়ে বারান্দায় সারিবদ্ধ হয়ে বসে থাকে।

মঙ্গলবার সকালে তারা সবাই পাস করেছে মর্মে অনলাইনে বোর্ডের একটি চিঠি পায়। এতে তারা আন্দোলন বন্ধ করে বিদ্যালয়ের তালা খুলে দেয়।ওই ১৭ শিক্ষার্থীদের সঙ্গে যোগাযোগ করলে তারা জানায়, আন্দোলনের কারণে তাদের ফলাফল ফিরে পেয়েছে। তারা রেজাল্ট পেয়ে খুশি। কিন্তু টাকা না পেয়ে নম্বর বোর্ডে না পাঠানোর সঙ্গে জড়িত সংশ্লিষ্ট শিক্ষকদের শাস্তির দাবি জানায় তারা।প্রধান শিক্ষক জারজিস হোসেন জানান, শিক্ষক নুর আলমের কারণে এ ধরনের ঘটনা ঘটেছে। অবশেষে তাদের রেজাল্ট নিয়ে আশা সম্ভব হয়েছে। এতে তিনিও খুশি।