নতুন মাইলফলকে মুশফিক

তৃতীয় বাংলাদেশি হিসেবে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ১১ হাজার রানের মাইলফলক স্পর্শ করেছেন মুশফিকুর রহিম। মিস্টার ডিপেন্ডেবল সোমবার আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচে ৮৩ রানের দুর্দান্ত এক ইনিংস খেলেন। ৮৭ বলে এই লড়াকু ইনিংস খেলার পর ব্যক্তিগত ৫৪ রান করার পরই নতুন এ মাইলফলক স্পর্শ করেন তিনি।২০০৫ সালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক হয় মুশফিকের। লর্ডসে জীবনের প্রথম টেস্ট খেলেন ইংল্যান্ডের বিপক্ষে। পরের বছর হারারেতে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওয়ানডেতে ডেব্যু হয় তার। পরে টি-টোয়েন্টি দলেও অপরিহার্য সদস্য হয়ে যান ব্যাটসম্যান কাম উইকেটকিপার মুশফিক।

ব্যাট হাতে মুশফিক যে ধারাবাহিকতা বজায় রেখেছেন, তেমনি উইকেটের পেছনে তিনি আস্থার পরিচয় দিয়ে যাচ্ছেন।আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে বাংলাদেশের পক্ষে সবচেয়ে বেশি রান তামিম ইকবালের। টেস্ট, ওয়ানডে আর টি-টোয়েন্টি মিলিয়ে ৩২৮ ম্যাচে ২১ সেঞ্চুরি ও ৮০ হাফসেঞ্চুরিসহ ১২ হাজার ৭২৪ রান করেছেন দেশসেরা এ ওপেনার।দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানের। ৩২১ ম্যাচে ১৪ সেঞ্চুরি ও ৭৭ হাফসেঞ্চুরিসহ বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারের সংগ্রহ ১১ হাজার ৪৭১ রান। এ দুজনের পরেই মুশফিকের অবস্থান।সাকিব থেকে মাত্র চার শতাধিক রান পেছনে মুশফিক। ব্যাটে ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে পারলে খুব শিগগির সাকিবকে পেছনে ফেলবেন মুশফিক। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ৩৫৪তম ম্যাচ খেলা মুশফিকের রান ১১ হাজার ২৯, সেঞ্চুরি ১৩টি, হাফসেঞ্চুরি ৫৮টি।

বিশ্বকাপে মুশফিক দুর্দান্ত পারফর্ম করছেন। সাউদাম্পটনে আফগান স্পিনারের বিষে বাংলাদেশ ব্যাটসম্যানদের যেখানে কঠিন পরীক্ষা দিতে হচ্ছিল, সেখানে সাবলীল খেলে গেছেন মুশফিক। এর আগের ম্যাচে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে খেলেছেন অপরাজিত ১০২ রানের দুর্দান্ত এক ইনিংস।সোমবারও বিশ্বকাপে টানা দ্বিতীয় সেঞ্চুরির পথে এগিয়ে যাচ্ছিলেন মুশফিক। কিন্তু শেষ দিকে রানের গতি বাড়াতে গিয়ে এক্সট্রা কাভারে উড়ন্ত শট খেলে মোহাম্মদ নবীর তালুবন্দি হয়েছেন দেশের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান। তাই আক্ষেপ জাগানো ইনিংসটার সমাপ্তি ৮৩ রানে।