ঢাকা, আজ বুধবার, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০

ইন্টারনেট বন্ধ, এমন দিনেই দিল্লিতে বিনামূল্যে ওয়াইফাই চালু কেজরিওয়াল সরকারের

প্রকাশ: ২০১৯-১২-২০ ০১:৩৮:২৬ || আপডেট: ২০১৯-১২-২০ ০১:৩৮:৪২

সিএএ বিরোধী প্রতিবাদের জেরে ইন্টারনেট বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে ভারতের রাজধানী দিল্লিতে। বৃহস্পতিবার, ১৯ ডিসেম্বর এরকম একটি দিনেই দিল্লিতে বিনামূল্যে ওয়াইফাই পরিষেবা চালু করল কেজরিওয়াল সরকার।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

২০১৫ সালেই দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন, দিল্লিতে বিনামূল্যে এই পরিষেবা চালু হবে। আজ দিল্লির আইটিও অঞ্চলের এক বাসস্টপে একটি ওয়াইফাই হটস্পটের কাছে উপস্থিত কেজরিওয়াল। উপমুখ্যমন্ত্রী মনীশ শিশোদিয়া ছিলেন দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ে। দু’জন মিলে একটি ভিডিও কল করে চালু করেন এই পরিষেবা। ‘দিল্লিকে একটি আধুনিক, বিশ্বমানের শহর বানানোর জন্য এটি একটি বড় পদক্ষেপ’ বলে মন্তব্য করেন কেজরিওয়াল। এই মুহূর্তে গোটা দিল্লি জুড়ে ১১,০০০ ওয়াইফাই হটস্পট বসানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

দিল্লির আইটিও অঞ্চলের কাছে রয়েছে বেশ কয়েকটি সংবাদমাধ্যমের দফতর এবং দিল্লি পুলিশের প্রধান কার্যালয়। এই মুহূর্তে সংশোধনী নাগরিকপঞ্জি আইন বিরোধী প্রতিবাদ এবং বিক্ষোভ আটকানোর জন্য সেখানে বন্ধ মোবাইল ইন্টারনেট। দিল্লি পুলিশ টেলিকম সংস্থাগুলোকে নির্দেশ দিয়েছে কল এবং এসএমএস পরিষেবাও বন্ধ করে দেওয়ার জন্য। দিল্লির উতর এবং মধ্য জেলা, মান্ডি হাউস, সিলামপুর, জাফরাবাদ, মুস্তাফাবাদ, জামিয়া নগর, শাহিনবাগ এবং বাওয়ানা অঞ্চলে বিশেষ ভাবে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে পরিষেবা বন্ধ করে দেওয়ার। প্রসঙ্গত, ১৯ ডিসেম্বর দিল্লিতে প্রকাশ্যে প্রতিবাদ সমাবেশ করার সময় আটক করা হয় বামপন্থী নেতৃবৃন্দকে। সীতারাম ইয়েচুরি, ডি রাজা, নীলোৎপল বসু, বৃন্দা কারাত প্রমুখকে আটক করা হয় মান্ডি হাউসের কাছে।