Monday, May 27News That Matters

ইসির কাছে রাষ্ট্রীয় সম্পদ অপচয়ের হিসাব চাইলেন চরমোনাই পীর

ইসলামী অন্দোলন বাংলাদেশের আমির চরমোনাই পীর মুফতি সৈয়দ মুহাম্মাদ রেজাউল করীম বলেছেন, ভোটার ও বিরোধীদল বিহীন উপজেলা নির্বাচন দেয়ার মাধ্যমে নির্বাচন কমিশন (ইসি) যে রাষ্ট্রীয় সম্পদের অপচয় করেছে, তার হিসাব জাতির সামনে পেশ করতে হবে।

তিনি বলেন, ভোটারহীন এই নির্বাচনের মাধ্যমে বাংলাদেশের নির্বাচন ব্যবস্থার ওপর গণমানুষের অনাগ্রহের বিষয়টি ফুটে উঠেছে।

শুক্রবার রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্সটিটিউট মিলনায়তনে দ্বিতীয় জাতীয় যুব কনভেনশনের প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

‘এসো হে যুবক, সত্যের পথে গাহি সাম্যের গান, চলো একসাথে বিজয়ের পথে সব আঁধারের হোক অবসান’ স্লোগানে দ্বিতীয় জাতীয় যুব কনভেনশনে সভাপতিত্ব করেন ইসলামী যুব আন্দোলনের কেন্দ্রীয় সভাপতি কে এম আতিকুর রহমান।

মুফতি সৈয়দ মুহাম্মাদ রেজাউল করীম বলেন, নির্বাচনী ব্যবস্থায় স্বচ্ছতা ফিরিয়ে আনতে এবং জনগণের ভোটারাধিকার ফিরিয়ে দিতে দেশের সকল শ্রেণিপেশার মানুষদের ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে।

সমাজের প্রাণশক্তি এই যুবকদেরকে মাদক, সন্ত্রাস, দুর্নীতি ও চাঁদাবাজির হাত থেকে মুক্ত হয়ে সত্যের পথে সুন্দরের পথে চলার পরামর্শ দিয়ে তিনি বলেন, যুব সমাজই হলো দেশ গড়ার প্রধান হাতিয়ার। অথচ সঠিক পরিকল্পনার অভাবে আমাদের দেশের কিছু যুবকরা আজ খুন, ধর্ষণ, চাঁদাবাজি, টেন্ডারবাজি, মাদক, চোরাচালানসহ সব ধরনের অপকর্মে লিপ্ত।

ইসলামী অন্দোলন বাংলাদেশের আমির বলেন, এই যুব সমাজের আদর্শিক উন্নয়ন ঘটাতে পারলে আমাদের সমাজের পুরো চিত্র পাল্টে যেত। এ জন্যই ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের অন্যতম সহযোগী সংগঠন ইসলামী যুব আন্দোলন দেশের যুবকদেরকে নৈতিকভাবে আদর্শবান ও চরিত্রবান করে গড়ে তুলতে কাজ করে যাচ্ছে।

তিনি বলেন, সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ মানব রাসূলে আকরাম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের সুন্নাহর অনুসরণে যুবকদের ব্যক্তিজীবন গঠন করতে পারলে তাদের মাধ্যমে দেশ ও জাতি বড় ধরনের অর্জন করতে সক্ষম হবে ইনশাআল্লাহ। সে জন্য তিনি সারা দেশের যুবকদের ঐক্যবদ্ধভাবে ইসলামের পক্ষে কাজ করার আহ্বান জানান।

তিনি আরও বলেন, নিরাপদ সড়কের দাবিতে ছাত্রদের চলমান আন্দোলনকে ভিন্নখাতে প্রবাহিত করার চেষ্টা না করে ওদের যৌক্তিক দাবিগুলো দ্রুত মেনে নিন। ওরা আমাদেরই সন্তান ওদের জন্য একটি নিরাপদ রাষ্ট্র দেয়া ক্ষমতাসীনসহ দায়িত্বশীল ব্যক্তিদের দায়িত্ব ছিল, কিন্তু তা দিতে ব্যর্থ হয়েছেন। তাই দ্রুত এই যৌক্তিক দাবিগুলো মেনে নেয়াই সবার জন্য কল্যাণকর।

চরমোনাই পীর তার বক্তব্যে পাকিস্তানের সাবেক প্রধান বিচারপতি আল্লামা তাক্বী উসমানী সাহেবের গাড়িবহরে সন্ত্রাসী হামলায় তার দুজন সঙ্গীর মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেন এবং হামলাকারীদের চিহ্নিত করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে ইসলামী আন্দোলনের নায়েবে আমির মুফতি সৈয়দ মুহাম্মাদ ফয়জুল করীম বলেন, দেশের প্রাণশক্তি যুবকদের চরিত্র হননের জন্য দেশদ্রোহী শক্তি অপচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। ইসলামী যুব আন্দোলনের প্রধান কাজ হলো যুবকদের চরিত্রবান বানিয়ে তাদের অপচেষ্টা রুখে দেয়া।

সভাপতির বক্তব্যে ইসলামী যুব আন্দোলনের কেন্দ্রীয় সভাপতি কে এম আতিকুর রহমান বলেন, দেশের চালিকাশক্তি যুবকদের উন্নত প্রশিক্ষণের মাধ্যমে তাদের দক্ষ জনশক্তিতে রূপান্তরিত করতে হবে এবং বেকারত্ব দূর করে যুবকদের কাজে লাগাতে পারলে দেশ উন্নতির উচ্চশিখরে আরোহণ করতে পারবে ইনশাআল্লাহ।

কনভেনশনে আরও বক্তব্য রাখেন ইসলামী অন্দোলন বাংলাদেশের নায়েবে আমির অধ্যক্ষ মাওলানা আবদুল হক আজাদ, মহাসচিব অধ্যক্ষ হাফেজ মাও. ইউনুছ আহমাদ, প্রেসিডিয়াম সদস্য আল্লামা নূরুল হুদা ফয়েজী, রাজনৈতিক উপদেষ্টা অধ্যাপক আশরাফ আলী আকন, যুগ্ম মহাসচিব এটিএম হেমায়েত উদ্দিন, ইসলামী যুব আন্দোলনের কেন্দ্রীয় সহসভাপতি ইঞ্জিনিয়ার শরিফুল ইসলাম, সেক্রেটারি জেনারেল মাও. নেছার উদ্দিন, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ঢাকা মহানগর দক্ষিণ সভাপতি মাও. ইমতিয়াজ আলম, উত্তর সভাপতি শেখ ফজলে বারী মাসউদসহ কেন্দ্রীয় নেতারা।

সম্মেলন শেষে ইসলামী যুব আন্দোলনের ২০১৯-২১ সেশনের নতুন কমিটির সভাপতি হিসেবে কেএম আতিকুর রহমান, সহসভাপতি হিসেবে ইঞ্জিনিয়ার শরিফুল ইসলাম এবং সেক্রেটারি জেনারেল হিসেবে মাওলানা মুহাম্মাদ নেছার উদ্দিনের নাম ঘোষণা করে শপথবাক্য পাঠ করান ইসলামী আন্দোলনের আমির।

ইসলামী যুব আন্দোলনের কেন্দ্রীয় প্রচার সম্পাদক মুহাম্মদ ইলিয়াস হাসানের স্বাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়।

আনার মন্তব্য দিন