Monday, May 27News That Matters

শিক্ষার্থীসহ স্কুল বিক্রির বিজ্ঞাপন ফেসবুকে ভাইরাল!

শিক্ষার্থীসহ হাইস্কুল বিক্রি- প্লে থেকে দশম শ্রেণি পর্যন্ত। এমনি একটি বিজ্ঞাপন ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে।নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের বিজ্ঞাপন একটি সাধারণ ঘটনা। তবে শিক্ষার্থীসহ স্কুল বিক্রির বিজ্ঞাপন এলেই অবাক করার মতো বিষয়।
শুক্রবার সকাল থেকেই ফেসবুকে এ বিজ্ঞাপনটি ঘুরছে ব্যবহারকারীদের ওয়ালে। সেখানে লেখা আছে- ‘বিক্রয় হইবে হাইস্কুল/প্লে-দশম শ্রেণি চলমান/৪৫০ ছাত্রছাত্রীসহ’।

বিজ্ঞাপনদাতার সঙ্গে যোগাযোগ করার জন্য একটি মোবাইল নম্বরও দিয়ে দেয়া হয়েছে সেই বিজ্ঞাপনের নিচে।তবে বিজ্ঞাপনে স্কুল অথবা স্থানের নাম উল্লেখ না থাকায় স্কুলটির অবস্থান এবং বিজ্ঞাপনের সত্যতা সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া যায়নি।
বিষয়টি সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে বিজ্ঞাপনে উল্লিখিত নম্বরে ফোন দিলে নম্বরটি বন্ধ পাওয়া যায়। তবে ট্রু কলার অ্যাপসে সেই নম্বরের স্বত্বধিকারীর নাম ‘ওয়াহিদ রামপুরা’ ভেসে ওঠে।
ফেসবুকে এই ছবি শেয়ার করে অনেকে নানা মন্তব্য করছেন। তারা তুলে ধরছেন বর্তমান শিক্ষাব্যবস্থার হালহাকিকত।

আল্লাহর চেয়ে বড় আর কেউ নেই: শোয়েব আখতার

প্রকৃতি কতই না সুন্দর। কী অপরূপ। এই ফুলটিই জ্বলন্ত প্রমাণ। প্রথম দেখাতেই মন জুড়িয়ে যায়। এই ফুলের স্নিগ্ধতা বিষন্ন মনকে আনন্দে ভরে দিতে পারে! ক্রিকেট ইতিহাসের সবচেয়ে দ্রুতগতরি বোলার শোয়েব আখতার গত সোমবার নিজের ভেরিফায়েড পেজে নয়নাভিরাম একটি ফুলের ছবি পোস্ট করেন।সেখানে তিনি ক্যাপশনে লেখেন, ‘আল্লাহই সবচেয়ে বড় শিল্পী এবং সর্বশক্তিমান। তিনি প্রতিটি জিনিসকে অপরুপ সুন্দর করে সৃষ্টি করেছেন। তার প্রশংসা না করে উপায় নেই।’

ফুলের এই ছবিটি দেখে শোয়েবের মতো মুগ্ধ তার ভক্তরাও। তার আলোচিত ওই টুইটের প্রতিক্রিয়ায় ভারত, পাকিস্তানসহ বিভিন্ন দেশের মানুষ শোয়েব আক্তারের প্রশংসা করেছেন।নয়া দিল্লির সৈয়দ ইনতেখাব উল হক নামে একজন লেখেন, মাশাআল্লাহ। এমন সুন্দর একটি ফুলের ছবি পোস্ট করার জন্য শোয়েব বুজদার নামে একজন লেখেন, ‘শোয়েব ভাই আই লাভ ইউ’।তাফহিমা রহমান নামে একজন লেখেন, ‘মাশাআল্লাহ, দুনিয়াবি জীবন নিয়ে ব্যস্ত থাকা সত্ত্বেও আপনি সর্বশক্তিমান আল্লাহর প্রশংসা করেছেন। আল্লাহ বেহশত নসিব করুন’। পাকিস্তানের হয়ে ১৯৯৭ সাল থেকে ২০১১ পর্যন্ত ক্রিকেট খেলেন শোয়েব আখতার। সময়ের অন্যতম সেরা পেস বোলার ছিলেন এই কিংবদন্তি। তার বোলিংয়ের সামনে বিশ্বের

আনার মন্তব্য দিন