Monday, May 27News That Matters

উচ্চ শিক্ষা

প্রধানমন্ত্রীকে ডাকসুর আজীবন সদস্য করার প্রস্তাবে আপত্তি ভিপি নুরের

প্রধানমন্ত্রীকে ডাকসুর আজীবন সদস্য করার প্রস্তাবে আপত্তি ভিপি নুরের

উচ্চ শিক্ষা
দীর্ঘ ২৮ বছর পর অনুষ্ঠিত হলো ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) কার্যকরী সভা।শনিবার বেলা ১১টায় ডাকসু ভবনে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। এ সভার মধ্য দিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে দায়িত্ব গ্রহণ করছেন নির্বাচিত সদস্যরা।সভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ডাকসুর আজীবন সদস্য করার প্রস্তাব ডাকসুর আন্তর্জাতিক সম্পাদক শাহরিমা তানজিম অর্ণি। তবে এ প্রস্তাবে আপত্তি জানান ডাকসুর ভিপি নুরুল হক নুর ও সমাজসেবা সম্পাদক আখতার হোসেন।প্রস্তাবে আপত্তি জানিয়ে নুরুল হক নুর বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা একজন সম্মানিত ব্যক্তি। এই বিতর্কিত নির্বাচনের মাধ্যমে যে ডাকসু, সেখানে তার মতো একজন সম্মানিত ব্যক্তিকে সদস্য করা ঠিক হবে না।এ বিষয়ে জিএস গোলাম রাব্বানী বলেন, যেখানে অধিকাংশ সদস্য মত দিয়েছেন সেখানে একজনের আপত্তি গ্রহণযোগ্য নয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য (ভিসি) অধ্যাপক ড. আখতারুজ্জামান বলেন, যে প্রস্তাব উঠেছে তা আমরা গ্
এসএসসি পরীক্ষা শুরু

এসএসসি পরীক্ষা শুরু

উচ্চ শিক্ষা
দেশের ১০টি শিক্ষা বোর্ডের অধীনে আজ শনিবার শুরু হয়েছে ২০১৯ সালের মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি) ও সমমানের পরীক্ষা। তত্ত্বীয় পরীক্ষা চলবে ২৬ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। এ ছাড়া সাধারণ শিক্ষা বোর্ডে ২৭ ফেব্রুয়ারি থেকে ৫ মার্চ, মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডে ২৮ ফেব্রুয়ারি থেকে ৬ মার্চ এবং কারিগরি শিক্ষা বোর্ডে ২৪ থেকে ২৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত ব্যবহারিক পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। এবার মোট ২১ লাখ ৩৫ হাজার ৩৩৩ জন শিক্ষার্থী অংশ নিচ্ছে। এর মধ্যে ছাত্র ১০ লাখ ৭০ হাজার ৪৪১ জন এবং ছাত্রী ১০ লাখ ৬৪ হাজার ৮৯২ জন। শিক্ষা মন্ত্রণালয় জানায়, ২০১৮ সালের তুলনায় এ বছর এসএসসিতে পরীক্ষার্থী বেড়েছে ১ লাখ ৩ হাজার ৪৩৪ জন। এবার আটটি সাধারণ বোর্ডে এসএসসি পরীক্ষার্থী ১৭ লাখ ১০২ জন। মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডে ৩ লাখ ১০ হাজার ১৭২ জন এবং কারিগরিতে ১ লাখ ২৫ হাজার ৫৯ জন রয়েছে। মোট কেন্দ্রের সংখ্যা ৩ হাজার ৪৯৭ ও প্রতিষ্ঠান ২৮ হা
বিশ্ব পাঠে স্থান পাচ্ছে বাংলাদেশের গণহত্যা

বিশ্ব পাঠে স্থান পাচ্ছে বাংলাদেশের গণহত্যা

উচ্চ শিক্ষা, জাতীয়, সারা দেশ
একাত্তরের গণহত্যার আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি মেলেনিবিশ্বের বড় গণহত্যাগুলোর মধ্যে এটি অন্যতমএই উপমহাদেশে এত বড় গণহত্যার নজির নেইস্বীকৃতির জন্য দরকার গণহত্যাসংক্রান্ত উন্নত তথ্য-উপাত্ত বাংলাদেশে ১৯৭১ সালে পাকিস্তান সেনাবাহিনী এবং তাদের এদেশীয় দোসরদের দ্বারা সংঘটিত গণহত্যার বিষয়ে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে আগ্রহ বাড়ছে। বাংলাদেশের গণহত্যা নিয়ে তারা যেমন গবেষণা করছে, তেমনি বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের গণহত্যা-সম্পর্কিত বিভাগে এ নিয়ে পাঠদান শুরু হয়েছে। বাংলাদেশের গণহত্যার বৈশ্বিক স্বীকৃতির জন্য এই ধারাকে ইতিবাচক বলে মনে করছেন মুক্তিযুদ্ধ গবেষক ও ইতিহাসবিদেরা। বাংলাদেশে একাত্তরে সংঘটিত গণহত্যার আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি আজও পাওয়া যায়নি। বিশ্বের বড় গণহত্যাগুলোর মধ্যে এটি অন্যতম। এই উপমহাদেশে এত বড় গণহত্যার নজির নেই। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের অধ্যাপক দেলোয়ার হোসেন বলেন, বাংল