তাতে দেখা যাচ্ছে, বরের সঙ্গে ঝ’গড়া হয়েছে স্ত্রীর। তা

banglarjay1banglarjay1
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  04:06 AM, 19 July 2020

এক্সক্লুসিভ ডেস্ক : বউ-শ্বাশুড়ি সম্পর্ক যুগে যুগে সবচেয়ে আলোচিত সম্পর্ক। এই সম্পর্ক সবসময়ই এক ধরনের জ’টিলতার মধ্য দিয়ে যায়। বউ-শ্বাশুড়ির সম্পর্ক মানেই সাধারণত দ্ব’ন্দ্ব-সং’ঘা’ত ও একে অপরের প্রতি শ্রদ্ধা ও সম্মান না থাকা। হিন্দি সিরিয়াল থেকে সিনেমা শাশুড়ি-বউমার সং’ঘা’ত মানেই হি’ট।

রান্নাঘর থেকে খি’টিমি’টি শুরু হয়ে ছেলে-স্বামীর সংসারের অধিকার। চাবিকাঠি কার হাতে থাকবে, এই নিয়েই শুরু হয় দড়ি টা’নাটা’নি। তারপর তো নাতি-নাতনি ঘুরে সেই সং’ঘা’ত গড়ায় বহুদূর। ফলে সকলে ধ’রেই নেন শাশুড়ির মেয়ে আর যাই হোক, বউমা কোনো দিনই হয়ে উঠতে পারে না। আর শাশুড়িও বউমার মা হয়ে উঠতে পারে না।

ট্র্যা’ডিশনাল হিসেব বলছে, শাশুড়িরা মনে করেন বউমা সংসারে আসা মাত্রই ছেলে পর হয়ে গেল। কিন্তু বৌমাও যে কখনো কখনো শাশুড়ির মেয়ে হতে পারে, বন্ধু হতে পারে, সেই বিষয়টাই যেন হঠাতই সোশ্যাল মিডিয়ার ভারতের একটি একটি ভিডিওতে সামনে এল।

অনেক পরিবারই আছে, যেখানে শাশুড়ি-বউমার সম্পর্ক সত্যিই যেন মা-মেয়ের সম্পর্কই হয়ে ওঠে। একে অপরকে ছাড়া থাকতে পারেন না এক মুহূর্তও। কিন্তু, তা বলে শাশুড়িকে কখনো নিজের বউমাকে কোলে তু’লে নিতে দেখেছেন? ধ’রা নেওয়া যেতে পারে দেখেননি।

এবার সেই ঘ’টনাই ঘ’টল। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে একটি ভিডিও। তাতে দেখা যাচ্ছে, বরের সঙ্গে ঝ’গড়া হয়েছে স্ত্রীর। তা দেখে শাশুড়ি এগিয়ে আসতেই আহ্লাদে আটখানা হয়ে শাশুড়ির কোলেই উঠে পড়লেন বউমা! আর শাশুড়িও তাতে বিন্দুমাত্র অস্ব’স্তি তো বোধ করলেনই না, বরং নিজের মেয়ের মতোই বউমাকে কোলে নিয়ে আদর করতে থাকলেন তিনি। শুধু তাই নয়, কোলে নিয়ে আদর করতে-করতেই কখনো বউমাকে ডাকছেন ‘পেঁচি’, কখনো বা ‘রাণী’ বলে।

ভিডিওটির সঙ্গে লেখা রয়েছে, ‘বউ যখন ছেলের সাথে ঝ’গড়া করে রাতে ‘খাব না’ বলে তখন ছেলের মা…’ নাহলে হয়ত বোঝা কঠিন ছিল তারা শাশুড়ি-বউমা।

ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, শুধু কোলে নিয়ে আদরই নয়, বউমার শরীর স্বাস্থ‍্যের দিকেও তী’ক্ষ্ণ ন’জর রয়েছে শাশুড়ির। শরীরের খেয়াল রাখে না বউমা, তাই কোলে নিয়ে মাঝেমধ্যে বকু’নিও দিচ্ছেন। আর ব’কা খেয়ে আরো যেন আহ্লাদিত হয়ে শাশুড়ির ঘাড়ে মুখ লু’কোচ্ছেন বউমা। আসলে স্বামীর সঙ্গে ঝ’গড়ার কারনেই মন খা’রাপ হয়েছে বউমার। তাই যেন স্বামীর পরই সবচেয়ে প্রিয় মানুষটার গলা জ’ড়িয়েই ব‍্য’ক্ত করছেন অভিমান।

আপনার মতামত লিখুন :