জুমার আলোচনায় সুদের বিরুদ্ধে বলায় ইমামকে বাদ দিল মসজিদ কমিটি

banglarjay1banglarjay1
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  03:56 PM, 14 June 2020

শুক্রবার চুয়াডাঙ্গার জীবননগরে সুদ খাওয়া হারাম বলে মসজিদে আলোচনা করায় ইমামকে বাদ দিলেন মসজিদ কমিটির সদস্যরা।

জীবননগর পৌর শহরের ইসলামপুর আল-আকছা মসজিদে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনাটি জীবননগর শহরে টক অব দ্যা টাউনে পরিণত হয়েছে।
null

null

null
স্থানীয়রা জানায়, জুমার নামাজের বক্তব্যে সুদ বিষয়ে আলোচনা করেন ইমাম সাহেব। কোরআন ও হাদিসের আলোকে সুদ বিষয়ে ইসলামের অবস্থান তুলে ধরেন।

একই সাথে সুদের কারণে সমাজে সৃষ্ট সমস্যাগুলো ব্যাখ্যা করেন। ইমাম সাহেব কোরআন ও হাদিসের উদ্ধৃতি দিয়ে বলেন, সুদ দেয়া ও নেয়া দুটোই সমান অপরাধ এবং সুদ খাওয়া সম্পূর্ণ হারাম।
null

null

null
এ থেকে সবাইকে সাবধানে থাকতে হবে। ঈমান যদি ঠিক রাখতে হয়, যারা সুদের সাথে জরিত তাদের তওবা করতে হবে।

এমন আলোচনা করায় ইমাম সাহেবের উপর ইসলামপুর গ্রামের কয়েকজন মুসল্লি ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে এবং মসজিদ কমিটির সভাপতি ও সম্পাদককে বলে ইমাম সাহেবকে ওই মসজিদ থেকে বাদ দিয়ে দেন।
null

null

null
এ বিষয়ে ইসলামপুর আল-আকছা মসজিদের ওই ইমামের সাথে কথা বলার জন্য চেষ্টা করা হলে তার ফোনটি বন্ধ পাওয়া গেছে।

এদিকে মসজিদ কমিটির সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ খোকন বলেন, ইমাম সাহেব অনেক দিন এই মসজিদে আছে।

যার ফলে স্থানীয় ব্যক্তিরা বলছেন, মসজিদে একজন নতুন ইমাম আনতে হবে। ইমাম সাহেবকে বিষয়টি বললে তিনি নিজেই এই মসজিদে আর নামাজ না পড়ানোর কথা বলেন।
null

null

null

মৃত্যুর আগে মাকে নিয়ে লেখা সুশান্ত সিংয়ের শেষ পোস্ট

বিনোদন ডেস্ক : সুশান্ত সিং রাজপুত কলেজে পড়া অবস্থায় তার মাকে হা’রান। মৃত্যুর আগে বারবার মাকেই স্মরণ করেছেন তিনি। তার দেওয়া সাম্প্রতিক একটি ইনস্টাগ্রাম পোস্ট সেই কথায় বলে। গত ৩ জুন নিজের অনুভূতি ব্যক্ত করে মায়ের ছবি ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করেন সুশান্ত। null

null

null

সেখানে লিখেছিলেন, ”চোখের জলে অস্পষ্ট হয়ে যাওয়া অতীত। অন্তর্নি’হিত স্বপ্নগুলি হাসির সিন্দুক খোদাই করেছে। ক্ষ’ণস্থা’য়ী জীবন নিয়ে দুজনের মধ্যে আলোচনা, মা।” এই পোস্ট দেখে ধা’রণা করা হচ্ছে সেই সময় থেকেই আত্মহ’ত্যার পরিক’ল্পনা করছিলেন সুশান্ত। রোববারnull

null

null মুম্বাইয়ের বাড়ি থেকেই উ’দ্ধার করা হয় তার ঝু’ল’ন্ত ম’রদেহ।

বাড়িতে থাকা কাগজপত্র থেকে জানা যায়, বেশ কিছুদিন ধ’রেই ডিপ্রে’শনে ভু’গছিলেন তিনি। কেদারনাথ অভিনেতার মৃত্যুর খবরে শো’কেnull

null

null স্ত’ব্ধ বলিউড। জানা গেছে, ২০০২ সালে যখন সুশান্তের মা মা’রা যান, তখন সুশান্ত কলেজে পড়েন। ২০১৬ সালে সুশান্ত মায়ের মৃত্যুবার্ষিকীতে একটি ট্যাটুও করান। যেখানে ছিল বিশ্ব ব্রহ্মাণ্ডের ছবি। আরও ছিল null

null

nullশিশু কোলে এক মায়ের ছবি। যেটি পোস্ট করে ক্যাপশনে লিখেছিলেন ‘মাদার অ্যান্ড মি’।

0 0 Google +0 0 0

You Might Also Like

আপনার মতামত লিখুন :